মুক্তিযুদ্ধ আজীবন সুখী ও সমৃদ্ধশালী নতুন বাংলাদেশ গড়তে অনুপ্রেরণা যোগাবে- গোলাম মোহাম্মদ কাদের
২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস। গৌরবোজ্জল ও তাৎপর্যপূর্ণ এই দিনে আমি দেশবাসী এবং বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে অবস্থানরত বাংলাদেশীকে প্রাণঢালা অভিনন্দন ও ভালোবাসা জানাচ্ছি।
স্বাধীনতার সুর্বণজয়ন্তীর বছরে গভীর কৃতজ্ঞতায় স্মরণ করছি বাঙালী জাতির পিতা, মহান মুক্তিযুদ্ধের অবিসংবাদিত নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। যিনি বাঙালী জাতির মুক্তির দূত হিসেবে আবির্ভূত হয়ে সারাটি জীবন নিবেদিত ছিলেন বাঙালীর অধিকার, স্বাধিকার, স্বাধীনতা ও আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে।
বিনম্র চিত্তে পরম শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় স্মরণ করছি ৩০ লাখ বীর শহীদদের। মহান মুক্তিযুদ্ধে জীবন উৎসর্গ করে যারা আমাদের লাল-সবুজের পতাকা উপহার দিয়েছেন। সশ্রদ্ধ সালাম সেই সকল বীর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি যারা জীবনবাজী রেখে লড়াই করেছেন আমাদের স্বাধীনতা ও মুক্তির জন্য।
পরম শ্রদ্ধায় স্মরণ করছি বাংলাদেশের প্রয়াত রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে। মহান মুক্তিযুদ্ধে অর্জিত স্বাধীন বাংলাদেশের আধুনিকায়নে যার অপরিসীম অবদান অক্ষয় হয়ে থাকবে। মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণে অসামান্য অবদান রেখেছেন তিনি।
মহান স্বাধীনতা সংগ্রাম বাঙালীর জীবনে এক অবিনশ্বর চেতনা। মহান স্বাধীনতা বাঙালীর শ্রেষ্ঠ অর্জন। ১৯৭১ সালের গৌরবোজ্জল উত্তাল দিনগুলো আমাদের আজীবন পথ দেখাবে। মুক্তিযুদ্ধ আজীবন সুখী ও সমৃদ্ধশালী নতুন বাংলাদেশ গড়তে অনুপ্রেরণা যোগাবে।
আসুন, স্বাধীনতার সুর্বণজয়ন্তীর এই শুভক্ষণে আগামী প্রজন্মের সুখময় ভবিষ্যত নিশ্চিত করতে ক্ষুধা, দারিদ্র এবং দুর্নীতিমুক্ত পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ-এর স্বপ্নের নতুন বাংলাদেশ গড়তে শপথ নেই।
আপনাদের সর্বাঙ্গীন মঙ্গল ও সমৃদ্ধি এবং সুস্থতা কামনা করছি।
(গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি)
চেয়ারম্যান, জাতীয় পার্টি,
বিরোধী দলীয় উপনেতা, বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ।


You may also like

Page 3 of 14